স্টিভ স্মিথঃ এ যেন ফিনিক্স পাখির রূপকথা
স্টিভ স্মিথ

স্টিভ স্মিথঃ এ যেন ফিনিক্স পাখির রূপকথা

ক্রিকেটের মহাকাব্যের নায়ক স্টিভ স্মিথ

২০১০ সালের ৫ই ফেব্রুয়ারি, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক এক ২০বছর বয়সী তরুণ লেগস্পিনারের । ৪ ওভারে ৩৪ রানের বিনিময়ে ২ উইকেট তুলে নিয়ে জানান দিলেন তার আগমনী বার্তা। ওইদিন অনেকে তাকে শেন ওয়ার্নের উত্তরসূরীও ভাবতে শুরু করেছিলেন। ২০১৫ সাল, ওয়েস্টইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ শেষে আইসিসি’র টেস্ট ব্যাটিং র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানে প্রবেশ করেন সেই অজি লেগ স্পিনার।

কী বুঝতে একটু কষ্ট হচ্ছে? পরিশ্রম কি না পারে?

তার নাম স্টিভেন পিটার দেভেরাক্স স্টিভ স্মিথ। ক্রিকেট মহলে তিনি ‘স্টিভ স্মিথ’ নামেই সমাদৃত। লেগস্পিনার হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করলেও পরিশ্রম করে বনে গেছেন বিশ্বসেরা টেস্ট ব্যাটসম্যান। ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন নাম্বার এইটে ব্যাটিং করে, আর বর্তমানে অজিদের ‘নাম্বার থ্রি’ সাম্রাজ্যের সম্রাট তিনি। এ যেন ফিনিক্স পাখির রূপকথাকেও হার মানাতে বাধ্য।

  • এমাজন প্রাইম এর তৈরী করা 5 Best Moment of স্টিভ স্মিথঃ

২০১৮ সালের মার্চ মাস, কেপটাউন টেস্ট। সিরিজে ধুঁকতে থাকা অজিদের সিরিজে ফেরাতে দলের অধিনায়ক বেছে নিয়েছিলেন এক অভিনব কিন্তু লজ্জাকর উপায়। বল টেম্পারিং!! দলটির অধিনায়ক আবার ছিলেন স্টিভ স্মিথ। তার ক্যারিয়ারকে যদি সাদা কাগজের সাথে তুলনা করি, তাহলে ঐ ঘটনাটা ছিল ওই সাদা কাগজে একটা কালো কালির দাগ। এরপর সবধরনের ক্রিকেট থেকে ১বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন।

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরে এলেন ক্রিকেট বিশ্বকাপে, কিন্তু স্বভাবসুলভ ব্যাটিং করতে পারলেন না তিনি। চারিদিকে হায় হায় রব উঠল। সময় ঘনিয়ে এল অ্যাশেজের। অ্যাশেজ অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডের জন্য সবচেয়ে মর্যাদার লড়াই, একে তো অ্যাশেজের চাপ তার উপর দর্শকদের দুয়ো। স্মিথের সবথেকে প্রিয় সমর্থকও বোধহয় ভাবেননি তিনি ফিরে আসবেন স্বরূপে। নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়ে হারানো নিজের সেই সিংহাসন ফিরে পেতে তিনি সময় নিলেন মাত্র এক ম্যাচ, দুই ইনিংস। আগে থেকে ঘোষণা দিয়েই অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে স্টুয়ার্ট ব্রডের বলে বোল্ড হওয়ার আগে করেছেন ১৪৪ রান, দ্বিতীয় ইনিংসেও করেছিলেন শতক। ফিরে পেলেন টেস্ট সেরার মুকুট। যোদ্ধারা বোধহয় এভাবেই ফিরে আসে..!? এই কারনেই তো তারা যোদ্ধা, তারা কিংবদন্তি। তারাই ক্রিকেটের মহাকাব্য। ইতিহাস বারেবারে স্মরণ করে এমন যোদ্ধাদের।

 181 total views,  1 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *